উইন্ডোজ এর সাথে উবুন্টু ডুয়েল বুট করুন সবচেয়ে সহজ এবং নিরাপদ উপায়ে…

No Comments

এই পোস্ট এ দেখাবো কিভাবে উইন্ডোজ এর সাথে উবুন্টু ডুয়েল বুট করবেন।অনেকেই লিনাক্স ইন্সটল করতে গিয়ে হার্ডডিস্ক ফরমেট,পারটিশন গোলমাল করে ফেলেন,তাদের জন্য এই টিউন খুব কাজে দেবে। এই কাজের জন্য আপনার হার্ডডিস্ক এ একাধিক পার্টিশন থাকতে হবে। নয়তো এই পদ্ধতি কাজ করবে না। নিচের ছবি গুলো ভাল করে দেখুন। কোনো ভুল করা চলবে না। আপনার ভুলের জন্য কোনো ক্ষতি হলে আমি দায়ী থাকবো না। তাহলে শুরু করা যাক।

 

১। প্রথমেই মাই কম্পিউটার আইকন এর উপর মাউস এর রাইট ক্লিক করুন এবং Manage এ ক্লিক করুন।

 

 

২।  এরপর এক্ টা নিউ উইন্ডো ওপেন হবে। Disk Management এ ক্লিক করুন।
৩।  আপনার হার্ডডিস্ক এর বিস্তারিত দেখাবে।
৪।  এখন যে ড্রাইভ টিতে জায়গা সবচেয়ে বেশি খালি আছে ওইটা বেছে নিন। যেমন আপনার G ড্রাইভ খালি আছে ২২০ জিবি এবং E ড্রাইভ খালি আছে ২০০জিবি। আপনি অবশ্যই G ড্রাইভ কে বেছে নিবেন Shrink করার জন্য।
৫।  এখন যে ড্রাইভ টিকে  Shrink করতে চান ওইটায় রাইট ক্লিক্ল করে  Shrink Volume এ ক্লিক করুন।
৬।  নীল তীর চিহ্ন দিয়ে দেখানো জায়গায় আপনি উবুন্টু এর জন্য যতোটুকু জায়গা নির্ধারণ করতে চান সেটা দিন এবং Shrink এ ক্লিক করুন। কমপক্ষে ১০ জিবি জায়গা লাগবে। আমি ৪৮ জিবি দিয়েছি। লাল  তীর চিহ্ন  দিয়ে দেখানো জায়গাটি হল Shrink করার পূর্বে ড্রাইভ এর সাইজ। হলুদ  তীর চিহ্ন  দিয়ে দেখানো জায়গাটি হল Shrink করার পরে ড্রাইভ এর সাইজ। কালো  তীর চিহ্ন  দিয়ে দেখানো জায়গাটি হল Shrink করা  নতুন ড্রাইভ।
সবকিছু ঠিক থাকলে ছবির মত নতুন একটি ড্রাইভ তৈরি হবে।এটাকে আর কিছু করার দরকার নেই।এই ড্রাইভটি আপনার ফাইল এক্সপ্লোরার এ দেখাবে না, এই নিয়ে চিন্তা করার কিছু নেই। অনেকে করে কি ভুলে Shrink করা ড্রাইভটাকে সিম্পল ফরমেট দিয়ে নতুন ড্রাইভ বানিয়ে ফেলে। এতে করে ড্রাইভটা NTFS এ ফরমেট হয়ে যায়। NTFS লিনাক্স ইন্সটল এর জন্য উপযুক্ত নয়।
বিঃ দ্রঃ ভুলেও C ড্রাইভ কে Shrink করার জন্য বেছে নিবেন না। করলে আপনার উইন্ডোজ  বাতিল হয়ে যেতে পারে।
       আমি আগেই নতুন ড্রাইভ Shrink করে রেখেছিলাম। তাই আগে থেকেই  নতুন ড্রাইভ টা দেখাচ্ছে। আপনার বেলায় এটা থাকবে না। Shrink করার পর নতুন ড্রাইভ দেখাবে।
৭। এখন আপনার উবুন্টু এর বুটেবল সিডি বা পেনড্রাইভ টি ইউএসবি পোর্টে প্রবেশ করান। ফাস্ট বুট হিসেবে অবশ্যই  সিডি বা পেনড্রাইভ থাকতে হবে।উবুন্টূ বুট হবে।বুট হওয়ার পর Try Ubuntu without installing না সিলেক্ট করে Install Ubuntu সিলেক্ট করুন এরপর নিচের ছবির মত Install Ubuntu  তে ক্লিক করুন।আপনি Shrink করে যে নতুন ড্রাইভ টি তৈরি করেছিলেন উবুন্টু স্বয়ংক্রিয় ভাবে ঐ ড্রাইভ টিতে ইন্সটল হবে।
এরপর এই মার্ক [ Install Ubuntu Alongside Windows 8]  অপশন টিতে ক্লিক করুন। এরপর Install  Now এ ক্লিক করুন।এরপর বিভিন্ন প্রয়োজনীয় তথ্য চাইবে। সেগুলো পুরুণ করুন। ঠিকমতো ইন্সটল হলে রিবুট চাইবে। রিবুট করুন। এখন আপনার উবুন্টু ব্যাবহার এর জন্য প্রস্তূ্ত।
পরের বার যখন পিসি অন করবেন তখন নিচের মতো একটা স্ক্রিন আসবে।নীল তীর চিহ্ন দিয়ে দেখানো জায়গায় ক্লিক করলে উবুন্টু চালু হবে এবং সাদা তীর চিহ্ন দিয়ে দেখানো জায়গায় ক্লিক করলে উইন্ডোজ  চালু হবে।
কিছু কথাঃ
আপনার মাদারবোর্ড যদি অনেক পুরনো হয় তাহলে ডুয়েল বুট হবেনা। কারন অইগুলায় ডুয়েল বুট সাপোর্ট নেই। তবুও ড্রাইভার আপডেট দিয়ে দেখতে পারেন। এছাড়াও কিছু বিশেষ ব্র্যান্ড যেমন Toshiba এর ল্যাপটপ গুলোয় ডুয়েল বুট করতে খুব ঝামেলা। এর কারণ আমি নিজেও জানিনা।
এই নিয়মে আপনি লিনাক্স এর যেকোনো ডিস্ট্রো ডুয়েল বুট করতে পারবেন। পোস্ট টি পড়ার জন্য ধন্যবাদ। itworld সাথেই থাকুন।

প্রথম থেকেই হ্যাকিং, রিভিউ, গ্যাজেট, সফটওয়্যার ইত্যাদি সম্পর্কে আমার ব্যাপক আগ্রহ আমায় ব্লগইন জগতে নিয়ে আসে। আমি সব সময় চেষ্টা করি আমার সামান্যতম জ্ঞানটুকু সকলের মাঝে ছড়িয়ে দিতে। বর্তমানে আমি কম্পিউটার সায়েন্স এর উপর বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং এ পড়াশোনা করছি। আমাকে ফেসবুকে পাবেন।

You might like also

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.